মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি

BANGLADESH RED CRESCENT SOCIETY

বরগুনা ইউনিট/BARGUNA UNIT

কার্যালয় ; রেড ক্রিসেনট বহুমুখী ভবন, সিরাজ উদ্দিন সড়ক ,বরগুনা, ফোনঃ ০৪৪৮৬২৮২৬/৬২৩৮২/৬২১৩৭

বিশ্বের ১৮৮ টি দেশে একটি জাতীয় সোসাইটি রয়েছে যা জাতীয় রেডক্রস, রেড ক্রিসেন্ট অথবা রেড ক্রিষ্টাল নামে পরিচিত। ১৯৭১ সালের ১৬ ই ডিসেম্বর বাংলাদেশের অভ্যুদ্বয়ের পর ১৯৭১ সালের ২০শে ডিসেম্বর ন্যাশনাল রেডক্রস সোসাইটি অব বাংলাদেশ নামে সরকারের নিকট স্বীকৃতির আবেদন করা হয়। ১৯৭২ সালের ৪ঠা জানুয়ারী বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদনক্রমে বাংলাদেশ রেডক্রস সোসাইটির কার্যক্রম শুরু হয়। পরবর্তীতে মহামান্য রাষ্ট্রপতির ভুতাপেক্ষ অনুমোদনক্রমে পি.ও-২৬/১৯৭৩ এর মাধ্যমে বাংলাদেশ রেডক্রস সোসাইটি সরকারের একটি সহযোগী (Axuliary)সংগঠন হিসেবে স্বীকৃত হয়। ১৯৭৩ সালের সেপ্টম্বর মাসে তেহরানে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বাংলাদেশ রেডক্রস সোসাইটির আনুষ্ঠানিক ভাবে আর্ন্তজাতিক স্বীকৃতি লাভ করে। বাংলাদেশ সরকারের ঘোষনা অনুযায়ী ১৯৮৮ সালের ৪ঠা এপ্রিল রেডক্রস সোসাইটির নাম ও প্রতীক পরিবর্তন করে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি করা হয় এবং প্রতীক রেড ক্রস এর পরিবর্তে রেড ক্রিসেন্ট হয়।

দেশের দুর্যোগ সমুহে দুঃস্থ মানুষের কল্যানে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির দায়িতব রয়েছে। বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি দেশের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে নিজস্ব স্বাধীনতা বজায় রেখে আর্ন্তজাতিক রেড ক্রস রেড ক্রিসেন্ট আন্দোলনের মুলনীতি অনুযায়ী কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। বাংলাদেশের ৬৪ টি জেলায় ও ৪ টি পুরোনো বিভাগীয় শহরে (সিটি কর্পারেশনে) রেড ক্রিসেন্ট ইউনিট রয়েছে, যার মাধ্যমে সোসাইটির তার সার্বিক কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির উল্লেখযোগ্য বর্তমান কার্যক্রম ক)দুর্যোগ ত্রাণ ও পুনর্বাসন কার্যক্রম খ) ঘুর্ণিঝড় প্রস্ততি কর্মসূচী (সিপিপি) গ) স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম ঘ) অনুসন্ধান ঙ) সমাজ ভিত্তিক দুর্যোগ মোকাবিলা কর্মসূচী চ) Community Development Initiative (CDI) ছ) যুব ও স্বেচছাসেবক কার্যক্রম জ) রক্তদান কর্মসূচী ঝ) সমাজ উন্নয়ন প্রকল্প ঞ) প্রশিক্ষন কার্যক্রম ট) ক্ষুদ্র ঋণ প্রকল্প ঠ) রেড ক্রিসেন্ট নীতিমালা ও আন্তর্জাতিক মানবিক আইনের প্রচার এবং প্রসার ড)Urban Disaster Risk Reduction (UDRR)ঢ়) জলবায়ু অভিযোজন ণ) Vulnerabliaty to Resilienc Project (V2RP)ত)Risk Reduction through Empowerment of Women (RREW)  থ) ইউনিট এ্যাফেয়ার্স দ) সাংগঠনিক উন্নয়ন প্রভৃতি।

প্রতিটি ইউনিটে ১১ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাহী পরিষদ এবং সোসাইটির নীতি নির্ধারণী, কার্য়ক্রম পরিচালনায় পরামর্শ ও উপদেশ প্রদানের জন্য কেন্দ্রিয়ভাবে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট ব্যবস্থাপনা পর্ষদ রয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির প্রেসিডেন্ট। তিনি তিন বছর মেয়াদে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির চেয়ারম্যান নিযুক্ত করেন।

বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ম্যান্ডেট

 

01    জেনেভা কনভেনশনের নিয়ম ও আদর্শ অনুযায়ী বাংলাদেশের অসুস্থ ও আহত সেনাবাহিনীর সদস্যদের সহায়তাArmed Forces Medical Servicesএর স্বীকৃত সহায়ক হিসাবে সোসাইটি তার উপর অর্পিত দায়িতব যথাযথভাবে পালন করবে।

02   জাতি,ধর্ম,বর্ণ ও রাজনৈতিক মতভেদে সকল মানুষের দু:খ কষ্ট প্রতিরোধে এবং দূরীকরণে ভূমিকা পালন করবে।

03  আন্তর্জাতিক রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট মুভমেন্ট এর সিদ্ধান্ত মোতাবেক সকল জাতির শান্তিও স্থাপনে কাজ করবে।

04    বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের বাইওে সংঘটিত ঘূর্ণিঝড়, ভূমিকম্প, বন্যা, দুর্ভিক্ষ,মহামারি, গৃহযুদ্ধেও কারনে উদ্ভূত দুঃখ কষ্ট নিবারনে যাথাযথ সাহায্য প্রদানের ব্যবস্থা করবে।

05    স্বাস্থের উন্নতিকল্পে, রোগ প্রতিরোধ কল্পে এবং রোগের কারনে সৃষ্ট দুঃখ কষ্ট লাঘবে যাথাযথ ব্যবস্থা করবে।

06  প্রাথমিক চিকিৎসা ও নার্সি এর জন্য প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

07    মাতৃসনদ ও শিশু কল্যান কেন্দ্র স্থাপন ও পরিচালনের ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

08   দেশের যুব সমাজ কে সু-সংগঠিত করা।

09   এম্বুলেন্স সার্বিস প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

10    হাসপাতালের রোগীদের কল্যানের নিত্য ব্যবহার্য ও উপহার সামগ্রী সরবরাহ করা।

11    সোসাইটির উদ্দেশ্যাবলীর অধিক বিস্তার কল্পে আর্ন্তজাতিক রেড ক্রস ও রেড ক্রিসেন্ট মুভমেন্ট কর্তৃক গঠিত কমিটি ও বডি’র সোসাইটি কর্তৃক প্রতিনিধিতব করনের ব্যবস্থা গ্রহন।

12   সোসাইটি কর্তৃক সময়ে সময়ে অনুমোদিত সমজাতীয় বিষয় সমুহের যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা।

সংযুক্তি

Employee List.xlsx Employee List.xlsx